1. nabadhara@gmail.com : Nabadhara : Nabadhara ADMIN
  2. bayzidnews@gmail.com : Bayzid Saad : Bayzid Saad
  3. bayzid.bd255@gmail.com : Bayzid Saad : Bayzid Saad
  4. : deleted-B6iY9nGV :
  5. mehadi.news@gmail.com : MEHADI HASAN : MEHADI HASAN
  6. jmitsolution24@gmail.com : support :
  7. mejbasupto@gmail.com : Mejba Rahman : Mejba Rahman
  8. : wp_update-1720111722 :
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ১০:২৬ পূর্বাহ্ন

ঝাউডাঙ্গায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে নৌকা আর মটর সাইকেলেরঃ জয়লাভের জন্য ফ্যাক্টর হবেন জয়দেব

Reporter Name
  • প্রকাশিতঃ রবিবার, ৭ নভেম্বর, ২০২১
  • ২৬৩ জন নিউজটি পড়েছেন।
নিজস্ব প্রতিনিধি, সাতক্ষীরা:
সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ঝাউডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদে আগামী ১১ নভেম্বরের নির্বাচনে যে প্রার্থীই জয়লাভ করুক ফ্যাক্টর হবেন স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়দেব কুমার ঘোষ। এখানে সখ্যালঘু ভোট ব্যাংক প্রার্থীদের জন্য চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।
সরজমিনে শুক্রবার সারাদিন ইউনিয়নে ঘুরে কথা হয় নানা শ্রেণিপেশার মানুষের সাথে। কথা হয় তরুণ ভোটারদের সাথে। নির্বাচন নিয়ে মতামত ব্যক্ত করেন গ্রামের সাধারণ মানুষ। ইউনিয়নটি জামায়াতে ইসলামী অধ্যুষিত হওয়ায় বিএনপি-জামাতের ভোট যার বাক্সে যাবে তিনই নির্বাচিত হবেন-এমন চিত্র দেখা গেল ভোটারদের সাথে কথা বলে। কারন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বড় অংশের ভোট কাটার আশঙ্কা হয়েছে। এই ভোট যাবে জয়দেব কুমার ঘোষের বাক্সে। কারন হিসেবে সাধারণ ভোটাররা বলছেন উপজেলা পর্যায়ের একজন আওয়ামী লীগের নেতা ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় নৌকার পক্ষে ভোট চাইতে গিয়ে সাম্প্রদায়িক ও উস্কানিমূলক বক্তব্য দিচ্ছেন জয়দেব কুমার ঘোষের বিরুদ্ধে।
পাথরঘাটা গ্রামে বর্তমান চেয়ারম্যান আজমল উদ্দিনের বাড়ির বাড়ির সামনে কথা হয় আনিসুর রহমানের সাথে। তিনি বলেন, ‘চেয়ারম্যান আজমল উদ্দিন পরিষদে সময় দেন না। আমাদের জরুরি প্রয়োজনে সেখানে মেয়ে ফিরে আসতে হয়। পড়তে হয় হয়রানিতে। জলাবদ্ধতা নিয়ে কোনো পদক্ষেপই তিনি নেননি। আগের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম অন্তত আমাদেরকে সময় দিতেন। যদিও রফিকুল ইসলাম আর্থিক বিষয়ে অনৈতিক ও অসৎ আরচণ করেছেন তার আমলের পাঁচ বছর।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে দুইজন নারী ভোটার অভিযোগ করে বলেন, চেয়ারম্যান আজমল উদ্দিনের দুই ছেলে ডাক্তার। তারা বসবাস করেন রাজশাহীতে। সেখানে চেয়ারম্যানের নিজের বাড়ি ও ব্যবসা আছে। যে‌ কারনে ইউনিয়নের ভোটারদের প্রতি তার কোনো দায়বদ্ধতা নেই। এবার যদি তিনি আবারও নির্বাচিত হন তাহলে আগামী পাঁচ বছর ইউনিয়নের কোনো উন্নয়ন হবে না। আমরা জিম্মি হয়ে পড়বো। আমরা চাই জনবান্ধব প্রার্থী নির্বাচিত হোক।
ঝাউডাঙ্গা বাজারে চা স্টলে কথা হয় এক যুবকের সাথে। নাম প্রকাশ না করে তিনি বলেন, ‘ আমি গত পাঁচ বছর চেয়ারম্যান আজমল উদ্দিনের সাথে সবসময় দেখেছি। কিন্তু একটি জরুরি কাজে একটি স্বাক্ষর নেয়ার জন্য পনের ঘুরেও কাজটি হয়নি। নাগরিক হিসেবে চেয়ারম্যানের কাছ থেকে একটা স্বাক্ষর যদি দুই সপ্তাহে নেয়া সম্ভব না হয়, তাহলে আর তাকে ভোট দিয়ে কি লাভ। রফিকুল ইসলাম সরকারি সুযোগ-সুবিধা তছরুপ, স্বজনপ্রীতি, আর্থিক কেলেঙ্কারিতে যুক্ত থাকলেও সময়-অসময় ভোটারদের পাশে থাকেন। তার এসব কথায় সুর মেলান চা দোকানদার। তিনি বলেন, আমরা পড়েছি দ্বিমুখী সংকটে। সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষ হওয়ায় নানামুখি চাপে আছি। আমরা চাই শান্তি ও ধর্মীয় সম্প্রীতির সাথে বসবাস করতে।
জয়দেব কুমার ঘোষ বলেন, আমি নতুন হিসেবে সকলের সহানুভূতি পাবো। আমাকে আওয়ামী লীগ নেতার কটুক্তি ও আমাকে ছোট জাত বলে গালি দিয়েছেন। ভোটাররা ব্যালটে এর জবাব দেবেন। তিনি বলেন, আমি সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি। ইউনিয়নের সংখ্যালঘু ভোটাররা এবার
আমি নির্বাচিত হলে ইউনিয়নে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির নতুন ইতিহাস সৃষ্টি হবে। বঞ্চিত, অসহায় মানুষ আমার সাথে আছে। নির্বাচিত হলে ইউনিয়কে মডেল ইউনিয়ন হিসেবে প্রতিষ্ঠা করবো।
সাবেক চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম বলেন, নিবিচিত হলে অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করবো। জলাবদ্ধতা নিরসনে পদক্ষেপ গ্রহণ করবো। সাধারণ মানুষকে আরও বেশি বেশি সেবা দেওয়ার চেষ্টা করবো। নির্বাচনের মাঠে পরিবেশ শান্ত আছে। প্রশাসন সহযোগিতা করছে। বর্তমান চেয়ারম্যান আজমল উদ্দিনের নিজের বাড়ি পাথরঘাটাসহ পার্শ্ববর্তী তিনটি গ্রামে আমার ক্যাম্পেইনের নারী কর্মীদের হয়রানি করা হয়েছে। ভোটাররা নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারলে জয়লাভ করবো বিপুল ভোটে।
বর্তমান চেয়ারম্যান আজমল উদ্দিনের প্রতিক্রিয়া জানতে দুই দিন একাধিক বার তার মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved সর্বস্বত্বঃ দেশ হাসান
Design & Developed By : JM IT SOLUTION